Image Not Found!
ঢাকা   সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ | ২৯ চৈত্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

  ইতালিতে প্রবাসী নারীদের আয়োজনে নারী নেত্রী মেহেনাস তাব্বাসুম শেলির তত্বাবধায়নে রোমের বিভিন্ন স্হানে বৈশাখ উদযাপন (4)        এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউনে যা বন্ধ থাকবে জেনে নিন (3)        রাজধানী ছাড়তে শুরু করেছে নিম্ন আয়ের মানুষ (2)        দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড (2)        হেফাজতকে জঙ্গি ঘোষণার দাবিতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে স্মারকলিপি (4)        প্রেম করে অন্যাত্র বিয়ে করায় পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়েছে প্রেমিক || (95)        বঙ্গবন্ধুর নীতি ও আদর্শকে বুকে ধারন করেই আওয়ামীলীগের রাজনীতি করি || জয়নাল আবেদীন হাজারী (95)        উন্নয়ন সহায়তায় ৫০% ভর্তুকীতে কৃষি যন্ত্রপাতি পাচ্ছেন শেরপুরের কৃষক (95)        ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ মারা গেছেন (4)        সাগরেরর পানিতে ভেসে এল বিশাল আকৃতির মৃত তিমি! (3)      

আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ঢাকায় আতাতুর্কের ভাস্কর্য নির্মাণ করবে তুরস্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক : মুজিববর্ষ উপলক্ষে তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ও ঢাকায় আধুনিক তুরস্কের প্রতিষ্ঠাতা কামাল আতাতুর্কের ভাস্কর্য স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মুস্তফা ওসমান তুরান।
বুধবার (২ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মুস্তফা ওসমান তুরানের সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে তিনি এ কথা বলেন।
তুরস্কের রাষ্ট্রদূত বলেন, বন্ধুত্বপূর্ণ দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আশা করি আমরা মুজিববর্ষের সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দেব। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, বঙ্গবন্ধু হচ্ছে বাংলাদেশের প্রতীক আর কামাল আতাতুর্ক হচ্ছে তুরস্কের প্রতীক। এই দুই নেতার ভাস্কর্য দুই দেশে স্থাপন করব। আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এবং ঢাকায় কামাল আতাতুর্ক এভিনিউয়ে কামাল আতাতুর্কের। শিগগিরই এই ভাস্কর্য স্থাপন করা হবে। ইস্তাবুল ও চট্টগ্রামেও এ ধরনের কিছু করা যায় কি না তা নিয়েও আমরা আলোচনা করেছি।’
তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, আজকে মূলত তুরস্ক রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ ছিল। বাংলাদেশ ও তুরস্কের মধ্যে সম্পর্ক ঐতিহাসিক। আমরা আজকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে আলোচনা করেছি। এই মুজিববর্ষ উপলক্ষে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তিনি আসবেন বলে সম্মতিও দিয়েছেন। তিনি বলেন, সার্বিকভাবে শুধু মুজিববর্ষ নয় আগামী বছর আমাদের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ৫০ বছর পূর্তি। সে উপলক্ষেও কীভাবে আমরা মিডিয়া ও জার্নালিস্টদের প্রশিক্ষণ আদান-প্রদান করতে পারি সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।