Image Not Found!
ঢাকা   শুক্রবার ২২ জানুয়ারী ২০২১ | ৯ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

  শেরপুরে ‘সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পের মাধ্যমে কৃষি সেচ প্রকল্পের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত (95)        স্মার্টফোন কিনতে ৯ লাখ শিক্ষার্থীকে দেওয়া হবে ১০ হাজার করে টাকা (4)        শেরপুরে স্কুল শিক্ষিকা স্ত্রীকে যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন ॥ পাষন্ড স্বামী গ্রেফতার (95)        নালিতাবাড়ীতে ফাঁসিতে ঝুলে যুবকের আত্মহত্যা (95)        শেরপুরে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভূমিহীন পরিবার পাচ্ছে জমিসহ ঘর ।। (95)        ভারতের উপহার করোনা ভ্যাকসিন বাংলাদেশে পৌঁছেছে (3)        ঝিনাইগাতীতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত (95)        কিশোরগঞ্জে গৃহহীন পরিবার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর (94)        ভয়ঙ্কর সেই গৃহকর্মী রেখাকে গ্রেপ্তার (3)        শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতিকে লড়াই করবেন পলাশ (95)      

চাঁদাবাজীর মামলায় রংপুর জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আটক

রংপুরে চাঁদাবাজীর মামলায় জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতিসহ ৩ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- রংপুর জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ধাপ চিকলীভাটার রওশন মিয়ার ছেলে মাহবুব হোসেন সুমন ওরফে ব্লাট সুমন, মেডিকেল পূর্বগেট এলাকার আলতাব হোসেনের ছেলে ছোট রাসেল (২২) ও তানভীর (২২)।

এই চাঁদাবাজীর মামলায় ৬ জনের নামে মামলা হয়েছে ও অজ্ঞাতানাম ১০-১২ রয়েছে। মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, লালমনিরহাট জেলায় শীর্তাতদের মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শেষে গত ২৯ নভেম্বর রাত ৯টার দিকে হক গ্রুপের চেয়ারম্যানসহ প্রতিষ্ঠানের সদস্যরা মেডিকেল পূর্বগেট এলাকায় আসলে মাহবুব হোসেন সুমন গাড়ির গতি রোধ করে এবং হক গ্রুপের জিএম রাজু আহম্মেদকে মারপিট করে জখম করে।

রিপন মিয়া (২৪), তানভীর (২২), ছোট রাসেল (২২), পান্ডারদিঘীর আরিফ (৩৫) নীলফামারী জেলার ডোমার চৌরঙ্গি বাজারের বাসিন্দা গাড়ির চালক আলমগীর হোসেনকে গাড়ি থেকে টেনে হেচরে নামিয়ে মেডিকেল পূর্বগেট এলাকার একটি রুমে নিয়ে গিয়ে মারপিট করে গুরুতর জখম করে। এ সময় চালক আলমগীরের কাছে দেড় লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে মাহবুব হোসেন সুমন ওরফে ব্লাট সুমন। দেড় লক্ষ টাকা না দিলে হত্যার করার হুমকি দেন ব্লাট সুমন এবং গাড়ীর ভিতরে থাকা সকলের বড় ধরণের ক্ষতি করার হুমকিও দেন সুমন।

অবস্থা বেগতিক দেখে হক গ্রুপের কর্মকর্তারা মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানায় বিষয়টি জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাদের উদ্ধার করে। ৩০ নভেম্বর গাড়ি চালক আলমগীর কোতয়ালী থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৩ জনকে গ্রেফতার করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছাত্রদলের ছেলেরা প্রায়ই চাঁদাবাজি করে থাকে। এটা তাদের স্বভাবে পরিণত হয়েছে। তাদের যন্ত্রণায় স্থানীয়রা সবসময় আতঙ্কে থাকে। 

মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানার ওসি (তদন্ত) রাজিফুজ্জামান বসুনিয়া বলেন- চাঁদাবাজীর ঘটনায় থানায় মামলা হলে আমরা রাতভর অভিযান চালিয়ে ৩ জনকে গ্রেফতার করেছি। বাকীদের গ্রেফতারে আমাদের অভিযান অব্যহত রয়েছে।

উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) আবু মারুফ হোসেন বলেন- অপরাধী যে দলেরই হোক না কেন, অপরাধ করলে কেউ রেহাই পাবে না। অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে আমরা সর্বদা কাজ করে যাচ্ছি।