Image Not Found!
ঢাকা   সোমবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

  চলে গেলেন বীরপ্রতীক (বার) কমান্ডার জহুরুল হক মুন্সী (95)        গজনীতে বর্নাঢ‍্য আয়োজনে দৈনিক সত্যের সন্ধানে প্রতিদিন পত্রিকার ১০ম বর্ষ পদার্পণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত (94)        নালিতাবাড়ীতে এসএসসি ৯৭ ব্যাচের ছাত্র-শিক্ষক মিলন মেলা ও সম্মাননা প্রদান (95)        পাখি সংরক্ষণে অবদান রাখায় শেরপুর বার্ড কনজারভেশন সোসাইটি পেলেন বিশেষ পুরস্কার (91)         শেরপুরে পরিবহন মালিক, চালক,শ্রমিক, ও হেলপারদের নিয়ে ট্রাফিক আইন সচেতনতামূলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত (95)        কলমাকান্দায় ভুট্টা চাষের স্বপ্ন দেখছেন কৃষকরা (94)        অবশেষে জামিনে মুক্ত কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক নেতা পাইলট (94)        শেরপুরে জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস উপলক্ষে বই পাঠ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত (95)        কলমাকান্দায় নৌকা ডুবে এক ব্যক্তি নিখোঁজ (95)        শ্রীবরদীতে ফাঁসিতে ঝুঁলে শিক্ষার্থীর আত্বহত‍্যা (95)      

হেফাজতের নায়েবে আমিরের পদত্যাগ!

সংগঠন থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নায়েবে আমির ও নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির আমির মাওলানা আব্দুল আউয়াল। সোমবার (২৯ মার্চ) পবিত্র শবে বরাতের রাতে একটি মসজিদে বয়ানের সময় তিনি এ ঘোষণা দেন। এ বিষয়ে জানতে তার সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, 'আমি একটি ভিডিও বার্তা পাঠাচ্ছি। সেখানে সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন।' ওই ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, হরতালের দিন সকাল থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে, র‌্যাব, পুলিশ আর বিজিবি আমাকে মসজিদে নজরবন্দি করে রেখেছিলেন। তারা আমাকে স্পষ্ট করে জানিয়েছেন, উপর থেকে সরাসরি অ্যাকশনে যাওয়ার অর্ডার রয়েছে। তাই আমি মিছিল নিয়ে হরতাল পালন করতে পারিনি। কিন্তু হেফাজতের একদল অতি উৎসাহিত লোক এই বিষয়টি মানতে পারছে না। সেদিন প্রশাসনকে উপক্ষা করে হরতালের সমর্থনে যদি বের হতাম, তাহলে হয়তো মসজিদে নামাজ পড়ার অবস্থা থাকত না। মসজিদের সামনে কয়েকটা লাশও পরে থাকতে পারত। তখন আপনারাই লাশের পক্ষ নিয়ে বলতেন, মায়ের বুক খালি করে আমাকে নেতৃত্ব দিতে কে বলেছে? তাই আমি এদিকেও যেতে পারি নি, ওই দিকেও যেতে পারিনি। সোমবার দোয়া মহাফিলের কথা ছিল ডিআইটি মসজিদে। কিন্তু তারা আমাকে সরিয়ে দিয়ে শহরের দেওভোগ মাদরাসা মসজিদে দোয়া মাহফিল করে বলেছেন, আমার মতো নেতা তাদের প্রয়োজন নেই। তারা যেহেতু আমাকে সাইড করে দিয়েছে তাই আমি হেফাজতে আমিরের পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে দিব। আমি মুসল্লিদের সাক্ষী রেখে বলছি, আমি হেফাজতের আমিরের পদে থাকব-না। এখন আমার একটাই রাস্তা। আমি হেফাজত ইসলামের নেতৃত্বে আর থাকব না। আমার আমির পদ দরকার নাই। আমার পক্ষ থেকে আর কোনো দিন কোনো ঘোষণা আসবে না। তোমরা যারা অতি উৎসাহীওয়ালা আছ, তোমরা বাবা হেফাজত ইসলাম কর।