Image Not Found!
ঢাকা   ১৪ এপ্রিল ২০২১ | ১ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

  টঙ্গীবাড়িতে প্রতারক চক্রের তিন সদস্য আটক। (2)        চাঁদ দেখা গেছে আগামীকাল বুধবার থেকে রোজা (2)        নকলায় হাজারধিক মাস্ক ও সাবান বিতরণ করলেন 'প্রস্ফুটিত শেরপুর' ফেইসবুক গ্রুপ (95)        জরুরী প্রয়োজনে যাতায়াতের নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ পুলিশের উদ্যোগে চালু হয়েছে মুভমেন্ট পাস (3)        খালেদা জিয়ার আরোগ্য কামনায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল, ইতালী শাখা (4)        আজ বিকেল তিনটা পর্যন্ত টাকা জমা ও উত্তোলন করতে পারবেন (2)        ইতালিতে প্রবাসী নারীদের আয়োজনে নারী নেত্রী মেহেনাস তাব্বাসুম শেলির তত্বাবধায়নে রোমের বিভিন্ন স্হানে বৈশাখ উদযাপন (4)        এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউনে যা বন্ধ থাকবে জেনে নিন (3)        রাজধানী ছাড়তে শুরু করেছে নিম্ন আয়ের মানুষ (2)        দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড (2)      

করোনা প্রতিরোধে দিল্লিতে ২৫ দিনের কারফিউ

আন্তর্জতিক ডেস্ক : করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) ঊর্ধ্বগতি রোধ করতে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে ২৫ দিনের রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) থেকে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত কারফিউ জারি থাকবে বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো।

কারফিউ চলবে প্রতিদিন রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত। গত মাস থেকেই দিল্লিতে সংক্রমণ বাড়তে থাকায় এ কঠোর পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে দিল্লি। রাত্রিকালীন কারফিউয়ের সময় ট্রাফিক চলাচল বন্ধ থাকবে না। তবে ই-পাস সঙ্গে থাকলে ভ্যাকসিন নেয়ার জন্য এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাওয়া যাবে। মুদি দোকানের জিনিসপত্র, শাক-সবজি, দুধ এবং ওষুধ কেনার জন্য ব্যবসায়ীদের কাছেও ই-পাস থাকতে হবে। এ ছাড়া সাংবাদিকদেরও চলাফেরার জন্য ই-পাস সঙ্গে রাখতে হবে। এদিকে বেসরকারি চিকিৎসক, নার্স এবং অন্যান্য মেডিকেল স্টাফদের আইডি কার্ড সঙ্গে রাখা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে গর্ভবতী নারী এবং জরুরি চিকিৎসা প্রয়োজন এমন লোকজন এসব নিয়মের বাইরে থাকবেন।

মঙ্গলবার ওয়ার্ল্ডোমিটারের দেয়া তথ্য মতে, একদিনের ব্যবধানে দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা কমেছে ভারতে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৯৭ হাজার মানুষ। একদিন আগেই আক্রান্তের সংখ্যা ছিল এক লাখের বেশি। সোমবার (৫ এপ্রিল) দিল্লিতে করোনায় নতুন আক্রান্ত হয় তিন হাজার ৫৪৮ জন এবং গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৫ জনের। দেশটিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মহারাষ্ট্র।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!