Image Not Found!
ঢাকা   ২২ জানুয়ারী ২০২২ | ৯ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

  ঝিকমারি খাল থেকে নিখোঁজ স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার (95)        কেকে’র চর ইউনিয়নে ভূয়া কাজির দৌরাত্ব, বৃদ্ধি পেয়েছে বাল্য বিবাহ (95)        ঝিনাইগাতীতে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবা ও গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার (95)        শেরপুরে বিএনএ সভাপতি কর্তৃক শেরপুর পৌরসভা'কে  কোভিড-১৯ সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান (95)        ঝিনাইগাতীতে আগুনে  পুড়ে এক পরিবারের বসতঘর পুড়ে ছাই! (95)        ঝিনাইগাতী বদ্ধভূমি থেকে মাথার খুলি কংকাল উদ্ধার (95)        ঝিনাইগাতীতে বিনাচিকিৎসায় ৮বছর ধরে শিকলে বন্দি মানুষিক ভারসাম্যহীন আখি  (95)        নন্নী থেকে সমশ্চুড়া গ্রামের তক্ষক ব‍্যবসায়ীকে আটক করেছে র‍্যাব (95)        শীতার্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করলো নালিতাবাড়ীর ইউএফএইচ সংস্থা (95)        বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা ও মুক্তি চেয়ে না'বাড়ীতে ছাত্রদলের লিফলেট বিতরণ (95)      

করোনায় মৃত ব্যক্তিদের মরদেহ বহন করা হচ্ছে আবর্জনার গাড়িতে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভারাসের (কোভিড-১৯) দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় রীতিমতো কাঁপছে ভারত। দেশটিতে ভয়াবহভাবে বেড়েই চলেছে ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এরই মধ্যে ভারতের ছত্তিশগড় থেকে সামনে এল ভয় ধরানো একটা ছবি। সেখানে করোনায় মৃত ব্যক্তিদের মরদেহ বহন করা হচ্ছে আবর্জনার গাড়িতে।

সম্প্রতি এমন একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ছবিতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, পিপিই পরা স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মরদেহগুলোর শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে শ্মশানে নেয়ার জন্য আবর্জনার গাড়িতে তুলছে।

এ বিষয়ে ছত্তিশগড়ের চিফ মেডিকেল হেলথ অফিসারের দাবি, করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মরদেহ বহনের জন্য গাড়ির ব্যবস্থা করা স্থানীয় পৌর কর্তৃপক্ষ ও সিএমওর দায়িত্ব। এখানে তাদের কিছু করার নেই। ভারতে করোনা মহামারি মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়া ১০টি রাজ্যের মধ্যে রয়েছে ছত্তিশগড়ও। ফলে ক্রমবর্ধমান আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যার কারণে ছত্তিশগড়ের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে। আর ওই রাজ্যেরই এলাকা রাজনন্দগাঁওয়ের অবস্থা আরও খারাপ। রাজ্যজুড়ে সকল হাসপাতালে বেড সংকটের কারণে রাজনন্দগাঁওয়ের প্রেস ক্লাব চত্বরকে কোভিড সেন্টার বানানো হয়েছে। দেশটির সংবাদ সংস্থা এএনআইর খবরে বলা হয়েছে, মেডিকেল স্টাফদের একটি টিম রোগীদের যত্ন নিতে সেখানে ২৪ ঘণ্টা দায়িত্বপালন করছেন।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!