Image Not Found!
ঢাকা   ২৯ জুন ২০২২ | ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

  ঝিনাইগাতীতে  বন্যার্তদের মাঝে রেডক্রিসেন্টের  ত্রান বিতরন  (95)        নালিতাবাড়ীতে সঞ্জয় সূত্রধর ও লোকনাথ চন্দ্র শীল মাদক সহ গ্রেফতার (95)        শেরপুর পৌরসভার ৮১ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা (95)        পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে শেরপুরে বর্ণাঢ্য র‌্যালি অনুষ্ঠিত (95)        ১১ দফা দাবিতে শেরপুর জেলা রবিদাস সম্মেলন অনুষ্ঠিত (95)        নালিতাবাড়ীতে নদীতে নৌকা ডুবে নিখোঁজ ব্যবসায়ীর ১৬ দিন পর লাশ উদ্ধার (95)        শেরপুরের শ্রীবরদীতে ৬  জনকে কুপিয়ে জখম,মা-মেয়েসহ ৩ জনের মৃত্যু (95)        নালিতাবাড়ীতে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা মেরামত করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান (95)        ঝিনাইগাতীতে  পাহাড়ি ঢলে কেড়ে নিল উবায়দুলের বসৎবাড়ি   (95)        বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ পরিষদ এর নবনির্বাচিত সভাপতি শামীম, সম্পাদক ক্লার্ক (4)      

ডেইলি শেরপুরে নিউজ দেখে ভিক্ষুক মারফত আলীর বাড়িতে ছুটে গেলেন চেয়ারম্যান রফিকুল

ডেইলি শেরপুরের নিউজ দেখে পাকুরিয়া ইউনিয়নের পূর্বপাড়া গ্রামের ভিক্ষুক মারফত আলী (৮০) ও কাজলী বেগম (৬০) এর বাড়িতে শেরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম স্বশরীরে পরিদর্শন করেন এবং ওই হতদরিদ্র পরিবারকে তাৎক্ষণিক দুই বান টিন এবং একটি পূর্ণাঙ্গ ঘরের ব্যবস্থা করা করার কথা বলে আসেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শেরপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হাই, মো মাহাদী মাসুদ ,প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ রানা,পাকুরিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান থানা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ,আওয়ামীলীগ নেতা আবু বক্কর সিদ্দিক প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, শেরপুর জেলার সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের পূর্বপাড়া গ্রামে ভিক্ষুক মারফত(৮০)ও কাজলী(৬০) উভয়দ্বয় স্বামী স্ত্রী ভিক্ষা বৃত্তি করে দিন চলে তাদের।নিঃসন্তান কাজলী স্বামী মারফত কে নিয়ে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত গ্রাম জুড়ে এক মুঠো করে চাউল সংগ্রহ করে দিন চালিয়ে আসা অবস্থায় তাদের থাকার এক খন্ড ভূমির উপর নির্মাণ করা হয়েছিলো। কোথাও থেকে চেয়ে নিয়ে আসা ছেঁড়া কাপড়, কিছু খড়,ভাঙ্গা টুকরো টিন,পলিথিন ওই ঘরে বসবাস করতেন ভিক্ষুক মারফত ও কাজলী। ভাগ্যের নির্মম পরিহাস ঝড় বৃষ্টি আসার আগেই  হালকা বাতাসেই লন্ডভন্ড হয়ে যায় তাদের একমাত্র থাকার ঠিকানা কাপড় ও খড়ের ঘরটি। বর্তমানে ভিক্ষুকদ্বয় খোলা আকাশের নিচে বসবাস করলেও এবিষয়টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেম্বার কোনো নেতার দৃষ্টি না পড়লেও সংবাদকর্মীর চোখে পড়ে এই হৃদয়বিদারক দৃশ্য।ক্যামেরা বন্দি করা হয় এই করুন কাহিনি  ভিক্ষুক মারফত আলী অশ্রু চোখে বলেন ভিক্ষা করে চলি তাই আমার ও আমার স্ত্রীর সরকারের দেওয়া দুঃসময়ে কোনো সহযোগীতা আমি পাই নাই। বর্তমান সরকার অসহায় মানুষের মাঝে ঘর বরাদ্ধ দিলেও দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কাজ হয়নি কোনো।জুটেনি একখানা ঘর মারফত ভিক্ষুক।